বিকা‌শ প্রতারণার ফাঁদে পড়ে খোয়া গেল সবজি বিক্রেতার ৩০ হাজার ৫ শত টাকা।

এনামুল হক রাশেদী, বাঁশখালী(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি: বিকাশ এর নামে প্রতারণা আমাদেরদেশে নতুন কোন ঘটনা নয়, দীর্ঘ দিন ধরে এইরুপ প্রতারণা চলছে-ই। বিকাশের পক্ষ থেকেও নানাভাবে সচেতন করা হচ্ছে  বটে, তথাপি প্রতারকদের নিত্যনতুন কৌশল আর অসচেতন গ্রাহকের কারণে এটা যেন আর থামছেনা!
সম্প্রতি চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপ‌জেলার ১নং পুকুরিয়া ইউ‌নিয়‌নের দক্ষিন বরুমচড়ার মোঃ নরুল আল‌মের পুত্র আবদুস সামাদ। পেশায় একজন সব্জি বিক্রেতা। বসবাস ক‌রেন বন্দর নগরী চট্টগ্রামের ৩৮ নং হালিশহর ওয়া‌র্ডে। বিকা‌শের প্রতারণার ফাঁদে পড়ে খোয়া গেল তিলে তিলে জমানো তার কষ্টার্জিত ৩০ হাজার ৫ শত টাকা। বিকা‌শ অ‌ফি‌সের নাম ভা‌ঙ্গি‌য়ে সে‌লিম না‌মের এক প্রতারক মায়াজাল ছড়িয়ে আবদু সামাদ (৩২) না‌মের সব্জি বিক্রেতা এ যুবকের ৩০ হাজার ৫ শত টাকা হা‌তি‌য়ে নি‌য়ে‌ছে।
১৪ ডিসেম্ভর’২০ ইং, সোমবার বিকাল ৪.৪৮ মিঃ সম‌য়ে প্রতারক সেলিম ০১৯৭১৮৫০৯৫৬ থে‌কে সব্জি বিক্রেতা আবদু সামা‌দের বিকাশ পা‌র্সোনাল নাম্বা‌রে (০১৮৩২৮৭৪৫৭৭) ৭ হাজার ৫ শত টাকা বিকাশ ক‌রে। টাকা পাটা‌নোর পর থেকেই শুরু করল প্রতারণার অ‌ভিনব কৌশল। প‌রদিন ০১৮২৫৭৭৯০০৪ থে‌কে ফোন দি‌য়ে আবদু সামাদ কে ব‌লে গতকাল যে দোকান থে‌কে আপ‌নি ৮,০০০ টাকা ক্যাশ ইন কর‌ছেন ঐ দোকান থে‌কে বল‌ছি ৫০০ টাকা রে‌খে বাকী ৭০০০ টাকা ০১৮১২৫৭৭৯০০৪ নম্বরে বিকাশ ক‌রে দিন , যথা‌রি‌তি আবদু সামাদ বিকাশ করল। কিছুক্ষণ প‌রে পূনরায় বে‌জে উঠল আবদু সামা‌দের ফোন এবার নতুন চমক , মুহু‌র্তে সামা‌দের বিকাশ একাউন্ট ব্লক হ‌লো। ০১৯৭৬৩০৬৩০৭ নং থে‌কে ফোন দি‌য়ে বল‌া হল,“ বিকাশ অ‌ফিস থে‌কে বল‌ছি আপনার একাউন্ট ব্লক হ‌য়ে গে‌ছে তাই *247# অপশ‌নে যে‌তে ব‌লে কৌশ‌লে তার পিন নং নাম্বার নি‌য়ে নেয়। পিন নং নি‌য়ে নেওয়ার ফ‌লে তার একাউন্ট সাম‌য়িক ব্লক দেখা যায়। প‌রক্ষ‌ণে ফোন দি‌য়ে ব‌লা হল আপনার নি‌জের (আবদুস সামাদের) একাউ‌ন্টে অর্থাৎ (০১৮৩২৮৭৪৫৭৭) ২২,৫০০ আসল টাকা ক্যাশ ইন করুন না হয় ব্লক খোলা যা‌বেনা। যে কথা‌র সে কাজ, ০১৬৪৫৩৫২০০৫ থে‌কে সামাদ তার পা‌র্সোনাল বিকাশ নং এ গতকাল সোমবার বিকেল ৫ঃ২৮ মিঃ ২২,৫০০ টাকার ক্যাশ ইন করার পর দেখ‌তে পায় তার একাউ‌ন্টে কোন টাকাই নাই। পূ‌র্বের একাউ‌ন্টে থাকা ৮০০০ টাকা সহ ৩০,৫০০ টাকা মুহু‌র্তের ম‌ধ্যে উধাও। বিকাশএকাউ‌ন্ট চেক ক‌রে দে‌খে কোন টাকাই নাই। প্রতারিত সব্জি বিক্রেতা আবদুস সামাদ তার বিকাশ একাউন্ট চেক করে দিশাহারা হয়ে পড়ে, চোখে তার শর্ষেফুল, পুরো দুনিয়াটাই যেন চক্কর দিতে থাকে আবদু সামাদের চোখে-মুখে। ৩০ হাজার ৫ শত টাকার অংকটা তেমন বড় না হলেও সব্জি বিক্রেতা আবদুস সামাদের জন্য এ যেন ৩০ কোটি টাকাই। মরার উপর খঁড়ার ঘা আবার, এরই মা‌ঝে আবদু সামাদকে পুনরায় রাত ৯.৫৭ টায় ফোন দি‌য়ে ব‌লে আ‌মি কল‌সি দিঘীর পাড়স্থ সে‌লিম টে‌লিকম থে‌কে বল‌ছি , একটু সমস্যা হ‌য়ে‌ছে আপনার টাকাটা মোবাই‌লে দেওয়া যা‌চ্ছে না, কোন সমস্যা নাই সব টাকা আ‌মি দিব। বিকাশ অ‌ফি‌সের সা‌থে কথা বল‌ছি আপনার টাকা বিষ‌য়ে তারা টিক ক‌রে দি‌বে, না দি‌লে আ‌মি আ‌ছি কিন্তু আপনা‌কে পুনরায় কোন এ‌জেন্ট নং থে‌কে ২২,৫০০ টাকা নিজ নাম্বা‌রে ক্যাশ ইন কর‌তে হ‌বে আপনার বিকাশ একাউন্ট ব্লক খোলার জন্য । এতক্ষণ পর আবদু সামা‌দের হুশ হল সে কলসী দিঘীর পাড়স্থ ক‌তিথ সে‌লিম টে‌লিকমে গি‌য়ে দে‌খে মূলত ঐ দোকা‌নের নাম টাঙ্গাইল টে‌লিকম যেখান থে‌কে আবদু সমা‌দ ১৩ডিসেম্ভর’২০ইং ৮০০০ টাকা ক্যাশ ইন কর‌ছিল। ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*