সীতাকুণ্ডে সাংবাদিক জয়নাল আবেদিনের উপর হামলা

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি: সীতাকুণ্ডে নির্বাচনী সংবাদ সংগ্রহের কাজে নিয়োজিত সংবাদকর্মীর উপর অতর্কিত হামলা করেছে সন্ত্রাসীরা।এসময় তার থেকে পত্রিকার আইডি কার্ড ও নগদ অর্থ ছিনিয়ে নেয়।

২৮ ডিসেম্বর সোমবার বিকাল ৩ টা ৪৫ মিনিটে সীতাকুণ্ড পৌরসভাস্থ মহিলা মাদ্রাসা সড়কে সন্ত্রাসীরা সাংবাদিক জয়নাল আবেদিনের উপর হামলা করে। সন্ত্রাসীরা কেন্দ্রের সামনে অবস্থান নেই এবং নির্বাচনী উত্তাপকে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন ধরনের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড কার্যক্রম করছে বলে জানা যায়।দক্ষিণ ইদিলপুর গ্রামের ৮নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে তারা দা , দেশীয় অস্ত্র, লাঠিসোটা নিয়ে ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন ও হামলা চালায়।

হামলাকারীরা হলেন দক্ষিণ ইদিলপুর গ্রামের বাসিন্দা মৃত বাবুলের পুত্র মামুন (২৮), আলাউদ্দিন এর পুত্র মাসুদ (২৫),ছাবেরের পুত্র মোঃ সাইফুল গ্যাং লিডার (২৮), মোঃ জামিন, মোঃ রিফাত সহ অজ্ঞাত আরো ৯ জন।

এই বিষয়ে সাপ্তাহিক চট্টবাণী পত্রিকার সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি সাংবাদিক জয়নাল আবেদীন জানান, আমি দুপুরে খাওয়া দাওয়া করে আমার গ্রামে দক্ষিণ ইদিলপুর গ্রামে মহিলা মাদ্রাসা কেন্দ্রে যাই।মহিলা মাদ্রাসা কেন্দ্র থেকে বাইরে যাওয়ার সময় কেন্দ্রের বাইরে সৌমিলের সামনে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে এলোপাতাড়ি মারধর শুরু করে।

আমার গলায় আইডি কার্ড ছিনিয়ে নেয় এবং নগদ ১৩ হাজার তিনশো টাকা হাতিয়ে নেয়। সাংবাদিক জানার পর সন্ত্রাসীরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে।

এর আগে এবছরের জানুয়ারি মাসে সন্ত্রাসী মামুনের বিরুদ্ধে জনৈক সাংবাদিক নিউজ করে। চাঁদাবাজ মামুন আমাকে সন্দেহ করে এবং আমাকে তখন থেকে হুমকি ধমকি দিয়ে আসছিল।সেই ধারাবাহিকতায় নির্বাচনকে লক্ষ্য করে আমার উপর হামলা করে।আমার শরীরের বিভিন্ন স্থানে তারা আঘাত করে।ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করার সময় আমি কোনভাবে ছুটে গিয়ে পুলিশের শরণাপন্ন হয়।পুলিশ ৫/৬ জন আমাকে নিরাপত্তা দিয়ে গাড়িতে তুলে দেন। আমি সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*